ঈদ করে দাদার বাড়ি থেকে ফেরা হলো না শিফার, পদ্মায় ডুবে মৃত্যু

গোদাগাড়ী প্রতিনিধি:
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার কোদালকাটি এলাকায় পদ্মা নদীতে ডুবে নাবিলা খাতুন শিফা (১১) নামের এক শিক্ষার্থী মারা গেছেন। গতকাল মঙ্গলবার (২ জুন) দুপুর ২  টার দিকে কোদালকাটি গ্রামে পদ্মা নদীতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে যায়। পরে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১ টার দিকে লাশ ভেসে উঠলে এলাকাবাসী তার মরদেহ উদ্ধার করে।
নাবিলা খাতুন শিফা উপজেলার চর আলাতুলি ইউনিয়নের কোদালকাটি গ্রামের শরিফুল ইসলামের মেয়ে। বর্তমানে নানার গোদাগাড়ী পৌর এলাকার গড়ের মাঠ গ্রামে বসবাস করত। সে মহিশালবাড়ি  মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী। মা বাবার সাথে দাদার বাড়ি কোদালকাটিতে ঈদ করতে গেছিলেন শিফা, সেখান থেকে আর ফেরা হলো না।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে শিফাসহ ৪ জন পদ্মা নদীতে গোসল ধরতে যায়। গোসল করার সময় ৪ জন নদীতে স্রোতে ভেসে যাওয়ার সময় জেলেদের চোখে পড়লে তিনজনকে টেনে তুলতে পারলেও শিফা পানিতে তলিয়ে যায়। স্থানীয় জেলে ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধারের চেষ্টা করে‌ও ব্যর্থ হলে পরে রাত ১ টার দিকে নিজে নিজেই ভেসে ওঠে তখন স্থানীয়রা তার মরদেহ উদ্ধার করে।
আলাতুলি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, স্থানীয়রা রাত ১ দিকে পদ্মা নদী থেকে শিফার মরদেহ উদ্ধার করে মরদেহ দাফন করা হয়েছে।
স/অ
শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।