ইভিএমে ভোটগ্রহণ হচ্ছে, ভোটারদের আগ্রহ বাড়ছে: কবিতা খানম

বগুড়ায় নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম বলেছেন, পৌর নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠু রয়েছে। এখন পর্যন্ত কোন প্রার্থী নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে কোন অভিযোগ করেননি। বগুড়ায় কয়েকদিন আগে অনুষ্ঠিত হওয়া পৌর নির্বাচন গুলোও সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইভিএমে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। ভোটারদের আগ্রহ বাড়ছে। বগুড়া পৌরসভা দেশের বৃহত্তম পৌরসভা। ভোটার সংখ্যাও অনেক বেশি। তাই এই পৌর নির্বাচনে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে। ইভিএমে ভোট হবে উৎসবমুখর পরিবেশে।

বগুড়া সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে আইনশৃংখলা বাহিনীর সাথে পৌর নির্বাচন উপলক্ষে মতবিনিময় সভা শেষে এ কথা বলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে রাত পৌনে ৯টা পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, নৌবাহিনী প্রতিনিধি, এপিবিএন’র প্রতিনিধি, আনসার বাহিনীর প্রতিনিধি, র‌্যাব প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময় শেষে সাংবাদিক সাথে কথা বলেন।

নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তরে বলেন, সারাদেশের মত বগুড়াতেও অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষে আইন শৃংখলা বাহিনী ও প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় করা। বগুড়া পৌর নির্বাচনে নির্বাচন কমিশনের পর্যবেক্ষক দল থাকবে।  ইভিএমে ভোট দিতে ভোটারদের আগ্রহ রয়েছে। এই কারণে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হবে।

আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের বিষয়ে তিনি বলেন, আগামী ইউপি নির্বাচনেও ইভিএমের ব্যবহার করা হবে। তবে সকল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ইভিএমে ভোট করা সম্ভব হবে না। কারণ ইভিএম মেশিনে সমস্যা নেই তবে টেকনিক্যাল বা লোকবলের সমস্যা রয়েছে। তাই ইউপি নির্বাচন ইভিএম ও ব্যালটে অনুষ্ঠিত হবে বলেও জানান তিনি।

আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে মতবিনিময় সভায় জেলা প্রশাসক জিয়াউল হকের সভাপতিত্বে এসময় জেলা পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহবুব আলম শাহ্ সহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

সুত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, silkcitynews@gmail.com ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।