ইংল্যান্ডে গুগলি হবে আমার মূল অস্ত্র: ইয়াসির শাহ

নিউজ ডেস্ক

এবারের ইংল্যান্ড সফরে গুগলি ডেলিভারিতে আলো ছড়াতে চান পাকিস্তান দলের বোলার ইয়াসির শাহ। আসন্ন টেস্ট সিরিজে স্বাগতিকদের বিপক্ষে এই ডেলিভারিকেই আসল অস্ত্র বানাতে চান এই লেগ স্পিনার।

করোনাভাইরাস সংকটের মধ্যে দীর্ঘ সফরে পাকিস্তান দল এখন ইংল্যান্ডে। দেশটিতে পৌঁছানোরর পর নিয়মানুযায়ী দুই সপ্তাহের আইসোলেশনে আছেন আজহার আলিরা। আগস্টে স্বাগতিকদের সঙ্গে তিন ম্যাচের একটি টেস্ট সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। এরপর দু’দলের মধ্যকার তিন ম্যাচের একটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ হবে।

ওরচেস্টার থেকে ভিডিও কনফারেন্সে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন ইয়াসির। এ সময় ইংল্যান্ড সফর নিয়ে নিজের পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেন ৩৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

টেস্ট ক্রিকেটে দ্রুততম সময়ে ১০০ ও ২০০ উইকেট নেওয়ার রেকর্ডধারী ইংল্যান্ডেও এবার তার বিখ্যাত গুগলি ডেলিভারিকে অস্ত্র বানাতে চান, “আমার গুগলি ডেলিভারি ভালো হচ্ছে। দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে বোলিংয়ে আমার সবগুলো গুগলিই ভালো হয়েছে। আমি মনে করি, সিরিজে গুগলিই হবে আমার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র।”

ইংল্যান্ডের বর্তমান উইকেট-পরিবেশ স্পিন সহায়ক বলে মনে করেন ইয়াসির। সেটা পুরোপুরি কাজে লাগানো লক্ষ্য তার, “এখানকার কাউন্টি দলগুলো জুলাই-সেপ্টেম্বর এই তিন মাসের জন্য স্পিনারদের চুক্তিবদ্ধ করে। কেননা এই সময়ে শুকনো উইকেট থেকে স্পিনাররা সহায়তা পায়। উইকেটগুলো স্পিনারদের সহায়ক হবে বলে আমিও আশাবাদী।”

কিন্তু গত বছর অস্ট্রেলিয়া সফরে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে মাত্র চারটি উইকেট নিতে পেরেছিলেন ইয়াসির। অবশ্য অ্যাডিলেডে প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকানোর স্বাদ পেয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকে ব্যাটিংয়েও উৎসাহী হয়ে উঠেছেন বলে জানালেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

“আমি নেটে ব্যাটিং নিয়েও কাজ করছি। দলের প্রয়োজন হলে যাতে কাজে লাগানো যায়। তাই ইংল্যান্ডেও একটা সেঞ্চুরি হাঁকানোর লক্ষ্য আছে আমার। অ্যাডিলেডে যদি শতক হাঁকাতে পারি এখানেও পারব।”

পাকিস্তান-ইংল্যান্ড মধ্যকার সিরিজের প্রথম টেস্টটি শুরু হবে ৫ আগস্ট, ম্যানচেস্টারে। এরপর সাউদাম্পটনে হবে সিরিজের পরের দুটি ম্যাচ। করোনাভাইরাস সংক্রমণের ভয়ে ম্যাচগুলো হবে বায়ো-নিরাপত্তা পরিবেশে, দর্শকশূন্য মাঠে।

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।