রবিবার , ৯ অক্টোবর ২০২২ | ১লা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ ও দুর্নীতি
  3. অর্থ ও বাণিজ্য
  4. আইন আদালত
  5. আন্তর্জাতিক
  6. কৃষি
  7. খেলা
  8. চাকরি
  9. ছবিঘর
  10. জাতীয়
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দুর্ঘটনা
  13. ধর্ম
  14. নারী
  15. নির্বাচিত খবর

আ.লীগ নেতার চেয়ারের আঘাতে উপজেলা চেয়ারম্যান আহত

Paris
অক্টোবর ৯, ২০২২ ৭:১১ অপরাহ্ণ

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

কুড়িগ্রামের উলিপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক মণ্ডলীর সভায় নিজ দলের নেতার ছুঁড়ে মারা চেয়ারের আঘাতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম হোসেন মন্টু আহত হয়েছেন।

শনিবার (৮ অক্টোবর) সন্ধ্যায় উপজেলা অডিটোরিয়াম হলরুমে। বর্তমানে আহত ওই নেতা কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১১ বছর পর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল আগামী ২২ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। কাউন্সিলকে ঘিরে উপজেলা আওয়ামী লীগ একাধিক গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পরে। কাউন্সিল সফল করার লক্ষে আগামী ১৪ অক্টোবর উপজেলা কমিটি বর্ধিত সভা আহবান করা হয়।

এরই প্রস্তুতিমূলক সভা হিসাবে শনিবার সন্ধ্যায় অডিটোরিয়াম হলরুমে উপজেলা কমিটির সম্পাদক মণ্ডলীর সভা শুরু হয়। সভার এক পর্যায়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম হোসেন মন্টু ও কাউন্সিলে সাধারণ সম্পাদক প্রত্যাশী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজাহার আলী রাজার মধ্যে সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এক পর্যায়ে আজাহার আলী রাজা ক্ষিপ্ত হয়ে চেয়ার ছুঁড়ে মারেন সাধারণ সম্পাদকের শরীরে।

এতে তিনি আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে লুটিয়ে পড়লে নেতাকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে তিনি বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সম্পাদক মণ্ডলীর একাধিক সদস্য জানান, মূলত কাউন্সিল স্থগিত করার জন্য একটি পক্ষ এ ঘটনা ঘটিয়েছে। ওই পক্ষটি উপজেলা আওয়ামী লীগকে অচল করে রেখে নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারের চেষ্টা করছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজাহার আলী রাজা বলেন, সাধারণ সম্পাদক কেন্দ্র থেকে অনুমতি নিয়ে আগামী ২২ অক্টোবর উপজেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলের তারিখ ঘোষণা করেছেন। বিগত দিনে উপজেলার একাধিক ইউনিয়নে বিএনপি-জামায়াত ও হাইব্রিডদের নিয়ে কমিটি গঠন করে তার নিজস্ব লোকজনদের মধ্যে থেকে সম্মেলনের কাউন্সিলর করা হয়। এ ব্যাপারে উপজেলা আওয়ামীলীগের অধিকাংশ নেতাকর্মী আপত্তি তুললে জেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ত্রুটিপূর্ণ কমিটিগুলো পূর্ণগঠন করার নির্দেশ দেন। কিন্তু সাধারণ সম্পাদক তা না করে চুপি চুপি কাউন্সিলের তারিখ এনে পকেট কমিটির মাধ্যমে পুনরায় সাধারণ সম্পাদক হওয়ার পরিকল্পনা করছেন। সভায় ওই বিষয় নিয়ে কথা বলার এক পর্যায়ে সাধারণ সম্পাদক ক্ষিপ্ত হয়ে কথা বলা শুরু করলে উভয়ের মধ্যে চেয়ার ছোড়াছুড়ির ঘটনা ঘটে। এতে তিনি পায়ে আঘাত পান।

গোলাম হোসেন মন্টু মোবাইল ফোনে জানান, হামলার ঘটনাটি ষড়যন্ত্র। আমরা চেষ্টা করছি উপজেলা আওয়ামী লীগের কাউন্সিলটি করার জন্য। একটি পক্ষ নানা অজুহাত সৃষ্টি করে কাউন্সিল বানচাল করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। সভা চলাকালে কোনো কিছু বুঝে উঠার আগেই আমার দিকে তেড়ে এসে আজাহার আলী রাজা চেয়ার ছুড়ে মারেন। আমি বর্তমানে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছি। নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কথা বলে এ ব্যাপারে দ্রুতই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. শহিদুল্লাহ লিংকন জানান, উলিপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর ইসিজিসহ বিভিন্ন পরীক্ষা করা হয়েছে। উনি বুকে আঘাত পেয়েছেন। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সূত্র: যুগান্তর

সর্বশেষ - জাতীয়