আখ-খেজুরের রস ছাড়াই মণের পর মণ গুড় তৈরি!‍

নিউজ ডেস্ক

গুড় তৈরির প্রধান উপকরণ রস। আখ, খেজুর অথবা তালের রস ছাড়া গুড় তৈরি সম্ভব নয়। কিন্তু এ অসম্ভব কে সম্ভব করেছে নাটোরের লালপুরে একটি চক্র। রস ছাড়াই মণের পর মণ গুড় তৈরি করে বাজারজাত করছে তারা।

আখ বা খেজুরের রস ছাড়াই মণের পর মণ গুড় তৈরির দায়ে নাটোরের লালপুর উপজেলার বালিতিতা ইসলামপুর গ্রামের দুই গুড় ব্যবসায়ীকে দুই লাখ টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার রাত ১১টার দিকে তাদের এই দণ্ডাদেশ দেয়া হয়। তারা হলেন- বালিতিতা ইসলামপুর গ্রামের তুহিন (৩০) ও জিয়াউর রহমান (৪০)। এসময় সাড়ে সাত হাজার কেজি ভেজালগুড় জব্দ করা হয়।

লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উম্মুল বানীন দ্যুতি জানান, চিনিকল এলাকায় আখ মাড়াই নিষিদ্ধ এবং খেজুর রস আহরণ ছয় মাস আগে বন্ধ হয়েছে। অথচ বালিতিতা ইসলামপুর গ্রামের তুহিন ও জিয়াউর তাদের কারখানায় আখের ও খেজুরের গুড় তৈরি করে আসছিলেন।

খবর পেয়ে নাটোর র‌্যাব ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের কারখানায় অভিযান চালিয়ে সাড়ে সাত হাজার কেজি ভেজাল আখের গুড়, তিন কেজি ফিটকারি, চার কেজি ডালডা, ৭০ কেজি চুন ও দুই কেজি হাইড্রোজেন জব্দ করেন।

র‌্যাবের সহকারী পুলিশ সুপার রাজিবুল আহসান এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন। সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা ভেজাল গুড় তৈরির কথা স্বীকার করেন। এ কারণে তাদের প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে মোট দুই লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। তারা তাৎক্ষণিকভাবে জরিমানা পরিশোধ করে ছাড়া পান। সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।