আইপিএলের বলে বলে রাজশাহীতে চলছে বাজি

নিজস্ব প্রতিবেদক:


ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) নিয়ে চলে রমরমা বাজি। কখনও পুরো খেলা, কখনও ওভারে। কখনও বা বলে বলে বাজি। শুধু তাই নয়, দুটিই ভালো দল হলে তবুও বাজি হয় ‘হেড টু হেড’। এমন ভাবে হাজার থেকে লাখ লাখ টাকার বাজি চলে আইপিএল ক্রিকেটকে কেন্দ্র করে। তবে আইপিএল বাজির ধরন পাল্টেছে। এখন অনলাইনে চলে বাজি। ‘1x bet ও বাজি নামের ওয়েব সাইট রয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।



আইপিএল নিয়ে সারা দেশে চলছে উন্মাদনা। চলছে জুয়ার আসর। রাজশাহীও এর ব্যতিক্রম নয়। আইপিএল শুরু হওয়ার পর থেকে শুরু হয়েছে রমরমা জুয়ার আসর। এ বাজি খেলা এখন আর সবাই মিলে টেলিভিশন দেখার সময় ধরা হয় না। মোবাইলে বাজিগারদের থেকে জানা হয় কোন দল কত দিচ্ছে। এর পরে জয়-পরাজয়ের উপরে নির্ভর করে টাকা চলে যায় বিকাশের মাধ্যমে মোবাইলে।

আইপিএলে কোন দল জিতবে, কোন দল কত রানে জিতবে বা হারবে, কত রান করবে এসব নানা বিষয়ে বাজি ধরতে মিডিয়া হয়ে কাজ করছেন কেউ কেউ। অন্যরা তাদের কাছ থেকে দর জেনে বাজিতে টাকা লাগাচ্ছে। তবে এই বাজিগররা অনেকটাই ধরা ছোঁয়ার বাইরে। কারণ লোকচক্ষুর অন্তরালে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ফাঁকি দিয়ে এসব বাজির লেনদেন হয়। থাকে না কোনো ‘ক্লু’। এবিষয়ে পুলিশ বলছে- মোবাইলে হয় বাজি। লেন-দেন হয় বিকাশ বা অনলাইনে।

জানা গেছে, নগরীর অর্ধশতাধিক পয়েন্টে চলছে জুয়ার আসর। মাদকদ্রব্যের মতোই কিশোর থেকে শুরু করে নানা বয়সী মানুষ জুয়ায় হয়ে পড়েছেন আসক্ত। প্রতিরাতে জুয়ায় কোটি টাকা লেনদেন হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, রাজশাহী নগরীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, ভ্যানচালক, দিনমজুর, হোটেল কর্মচারী থেকে শুরু করে নানা শ্রেণি ও পেশার মানুষ জড়িয়ে পড়ছেন জুয়ায়। বিভিন্ন মার্কেটের বিশেষ কিছু কক্ষে এ জুয়ার আসর বসে। তবে ডিজিটাল পদ্ধতিতে মোবাইল ফোনে ইন্টারনেটের মাধ্যমে জুয়া নিয়ন্ত্রিত হওয়ার কারণে জুয়াড়িদের এসব আসরে আসতে হয় না।

জানা গেছে, নগরীর লক্ষ্মীপুর ও দাসপুকুর, টিকাপাড়া, চন্ডিপুর, দর্গাপাড়া, মিজানের মোড়, শিরোইল বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী কাজলা, বিনোদপুর, বার রাস্তার মোড়সহ বিভিন্ন এলাকায় চলে বাজি। এ আসরেও প্রতিদিন লেনদেন হচ্ছে কয়েক লাখ টাকা।
নগরীর দাসপুকুরে আইপিএল বাজিকে কেন্দ্র করে ২০১৭ সালের ২২ সেপ্টেম্বর কোটি টাকা লেনদেনকে কেন্দ্র করে খুন হন নগরীর উপকণ্ঠ কাশিয়াডাঙ্গা এলাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী সাহাবুল ইসলাম।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে নগরীর বুধপাড়া ও মোহনপুর এলাকার কয়েকজন জানান, রাজশাহী নগরীর বিভিন্ন স্থানে সব মিলিয়ে অর্ধশত পয়েন্টে আইপিএলকে কেন্দ্র করে জুয়ার আসর বসছে। টাকা হেরে অনেকে নিজের সহায়-সম্বল হারিয়ে পথে বসেছেন। টাকার অভাবে কেউ কেউ দামি মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ, মোটরসাইকেল, স্ত্রীর সোনার গয়নাসহ নানা দামি জিনিস বন্ধক রেখেও যাচ্ছেন। কেউ কেউ বাজির টাকার জোগান দিতে নিচ্ছেন উচ্চসুদে টাকাও।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানায়, আইপিএলের নামে নগরীতে বাজির বিষয় শুনেছি। পুলিশ বিষয়টি নজরে রেখেছে। মোবাইল বা অনলাইনে লেন-দেন হয়। সেগুলো শনাক্তের জন্য সাইবার ক্রাইম ইউনিটে কাজ করবে। আরএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিট শক্তিশালী। অপরাধ বা অপরাধী যেমনই হোক আইনের আওতায় আনা হবে।

শর্টলিংকঃ

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @silkcitynews.com আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।