রাজশাহী ও পাবনায় তিন জেএমবি সদস্য গ্রেফতার

March 13, 2017 at 11:58 am

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর বাগমারা ও পাবনায় নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গিসংগঠন জামায়াতল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) এর তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে রাজশাহীর বাগমারায় আবদুল খায়ের (৪৫), পাবনায় শফিকুল ইসলাম (৩০) ও জিয়াউল করিমকে (৩২) গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের দাবি গ্রেফতারকৃতরা তালিকাভুক্ত জেএমবি সদস্য ।

বাগমারা প্রতিনিধি জানায়: রোববার গভীর রাতে বাগমারার ঝিঁকড়া ইউনিয়নের কুদপাড়া এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহম্মেদ সিল্কসিটিনি্উজকে গ্রেফতারের বিয়টি নিশ্চিত করেছে

গ্রেফতারকৃত হলেন, ঝিঁকড়া ইউনিয়নের কুদপাড়া এলাকার মৃত দুবাই আলীর ছেলে আবদুল খায়ের (৪৫)

ওসি নাসিম আহম্মেদ সিল্কসিটিনি্উজকে বলেন, আবদুল খায়ের জেএমবি সদস্য। রোববার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। জেএমবি সদস্য আবদুল খায়ের তালিকার ৬৫ নম্বর সদস্য। তাকে ২০০৪ সালে জেএমবির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে আটক করা হয়েছিলো

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে জেএমবির শীর্ষ নেতা সিদ্দীকুল ইসলাম ওরফে বাংলাভাইয়ের হাত ধরে জঙ্গি সংগঠনে যোগ দেন তারা। এর পর তারা বাগমারা এলাকায় সাধারণ মানুষকে ধরে নিয়ে গিয়ে হত্যা, গুম নির্যাতন চালাতে বাংলাভাইকে সহযোগিতা করে। সে সময় তাদের বিরুদ্ধে বাগমারা থানা রাজশাহীর আদালতে হত্যা, গুম নির্যাতনসহ নাশকতার অভিযোগে একাধিক মামলা হয়েছিল

পাবনা প্রতিনিধি জানায়: পাবনায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে দুই জেএমবি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত দুজন পুলিশ সদর দফতরের তালিকাভুক্ত জঙ্গি।

গ্রেফতার শফিকুল ইসলাম (৩০) পাবনা শহরের রাধানগর মক্তবপাড়া এলাকা এবং জিয়াউল করিম (৩২) নারায়ণপুর এলাকার বাসিন্দা।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রাজ্জাক জানান, তালিকাভুক্ত দুই জেএমবি সদস্য পাবনায় অবস্থান করছে, এমন তথ্যের ভিত্তিতে রবিবার রাতে পাবনা শহর ও ঈশ্বরদীসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় পুলিশ। এক পর্যায়ে শহরের রাধানগর এলাকা থেকে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। এ দুজনের বিরুদ্ধে পাবনা সদর থানায় ৩টি মামলা রয়েছে। এছাড়া ঝিনাইদহ ও শরীয়তপুর থানার কয়েকটি মামলায় দীর্ঘদিন কারাগারে ছিল তারা।

স/আ

Print