কেন্দুয়ায় কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা

July 11, 2018 at 9:50 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার একটি গ্রামে এক কিশোরীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে কেন্দুয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

মামলায় দুই যুবককে আসামি করা হয়েছে। অভিযুক্ত যুবকেরা হলেন একই গ্রামের মিরাজ আলীর ছেলে দুখু মিয়া (২৬) ও মন্তু মিয়ার ছেলে জুলহাস মিয়া (২৭)।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ওই কিশোরীকে একই গ্রামের দুখু মিয়া ও জুলহাস মিয়া বেশ কিছুদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। একপর্যায়ে মেয়েটি তার পরিবারকে বিষয়টি জানায়। তখন ওই যুবকদের অভিভাবককে এ ব্যাপারে জানানো হয়। এতে ওই দুই যুবক ক্ষুব্ধ হয়ে গত সোমবার রাত দুইটার দিকে কিশোরীর শোয়ার ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢোকে। পরে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে তাকে দুজন ধর্ষণ করেন। এ সময় কিশোরীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে ওই দুই যুবক পালিয়ে যান।

ওই কিশোরীর মা বলেন, ‘মেয়ের বাবা বাড়িতে থাকেন না। ঘটনার দিন রাতে আমিও বোনের বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিলাম। এই সুযোগে আমার মেয়েকে ঘরে একা পেয়ে দুখু ও জুলহাস তাকে ধর্ষণ করে। তারা এলাকায় বখাটে হিসেবে পরিচিত। আমি তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমারত হোসেন গাজী প্রথম আলোকে বলেন, মামলার অভিযুক্ত দুই যুবককে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Print