বাঘায় ২৫ মেট্টিকটন আম বিদেশে রপ্তানি

July 11, 2018 at 6:39 pm

আমানুল হক আমান, বাঘা:
রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আম চলতি মৌসুমে আটটি দেশে ২৫.২৩ মেট্ট্রিকটন আম রপ্তানি করা হয়েছে। ৬ জুন থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত এই আম রপ্তানি করা হয়। হটেক্স ফাউন্ডেশন ও উপজেলা কৃষি অফিসের যৌথ আয়োজনে বিশ্ব খাদ্য সংস্থার মাধ্যমে এই আম রপ্তানি করা হয়।

জানা যায়, আম রপ্তানির জন্য ৫০ জন বাগান মালিককে উত্তম কৃষি ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে নিরাপদ ও বিষমুক্ত আম উৎপাদনের লক্ষ্যে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এর মধ্যে প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী ১১ জন আম চাষীর কাছ থেকে চলতি মৌসুমে ইংল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, সুইডেন, নরওয়ে, পর্তুগাল, ফ্রান্স, রাশিয়া, ইতালিসহ ৮টি দেশে ২৫.২৩ মেট্ট্রিকটন আম রপ্তানি করা হয়েছে। এই প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত চাষিরা কৃষি ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে বাগানে উৎপাদিত ও ক্ষতিকর রাসায়নিকমুক্ত ২০০ থেকে ৩০০ গ্রাম ওজনের আম তৃতীয়বারের মতো বিদেশে রপ্তানি করে।

কলিগ্রামের আম চাষি আশরাফুদৌলা, আড়পাড়া গ্রামের মহসীন আলী বলেন, গতবারের ন্যায় এবারো উপজেলা কৃষি অফিসের সার্বিক তত্বাধায়নে এ আম রপ্তানী করা হয়।

বাঘা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাবিনা বেগম বলেন, বাঘা উপজেলার মাটি আম চাষের জন্য উপযোগি। ফলে এই দেশে চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করা হয়। এছাড়া আম থেকে চলতি মৌসুমে এ উপজেলার মানুয়ের লক্ষাধিক মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। বাঘার আমের স্বাদ ও গুণগতমান অতুলনীয়। ফলে এ আম দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করা হয়।

উল্লেখ্য উপজেলা প্রশাসক ২০ মে থেকে গুটি আম, ২৫ মে গোপালভোগ, ২৮ মে হিমসাগর, খেরসাপাত, লক্ষণভোগ, ১ জুন লোকনা, ল্যাংড়া, ৫ জুন ১৫ জুন ফজলী, ১ জুলাই আস্বিনা আম চাষিরা গাছ থেকে নামিয়ে ঢাকা, নরসিংদী, ভৈরব, বরিশাল, সিলেট, চট্টগ্রাম ও ফেনীসহ দেশের অন্যান্য স্থানে কেনাবেচা হচ্ছে। এ আম দেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। বিদেশে রপ্তানি করা হয়।

স/শা

Print