প্লাবিত হতে পারে দেশের নিচু এলাকা

July 3, 2018 at 10:11 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও অতিবৃষ্টিতে দেশের উত্তর-পূর্ব-মধ্যাঞ্চলের নিচু এলাকা প্লাবিত হতে পারে।

মঙ্গলবার থেকে দেশের প্রধান নদ-নদীগুলোর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। সুরমা ও কুশিয়ারা নদীর পানি চারটি পয়েন্টে বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি বৃদ্ধি আরও কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে। আগামী দু’দিন গঙ্গা-পদ্মা অববাহিকা, উত্তরাঞ্চলের ব্রহ্মপুত্র, তিস্তা, ধরলা, ঘাঘট নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র এসব তথ্য জানিয়েছে।

মঙ্গলবারের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পানি উন্নয়ন বোর্ডের ৯৪টি পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের মধ্যে ৭১টি পয়েন্টে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। ১৯টি পয়েন্টে পানি কমেছে। সুরমা, কুশিয়ারা ও পুরনো সুরমার চারটি পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তিনটি পয়েন্টে পানি অপরিবর্তিত রয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া জানান, বাংলাদেশ ও ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের উত্তরাঞ্চল, দক্ষিণাঞ্চলসহ তদসংলগ্ন ভারতীয় অংশে ভারি থেকে অতিভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, বিশেষ করে দেশের উত্তরাঞ্চলের নদীর পানি বাড়তে পারে। নীলফামারী, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, রংপুর, দিনাজপুর, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, জামালপুর ও মানিকগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হতে পারে।

Print