ভিনরাজ্যে কাজে গিয়ে রহস্যমৃত্যু যুবকের

June 30, 2018 at 10:46 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

ভিনরাজ্যে কাজ করতে গিয়ে মৃত্যু হল এক স্বর্ণকারের৷ মৃতের নাম ভাস্কর রানা৷ পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরের চাইপাট গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন তিনি৷ আহমেদাবাদে সোনার দোকানে কাজ করতেন৷ বৃহস্পতিবার সেখানেই রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয় তাঁর৷

সোনার কাজ করতে ভিন রাজ্যে পাড়ি দেন ঘাটাল দাসপুরের ২০ শতাংশ মানুষ৷ যেমনটা গিয়েছিলেন ভাস্কর৷ এক আত্মীর হাত ধরে বছরখানেক আগে পাড়ি দিয়েছিল গুজরাটের আহমেদাবাদে৷ সেখানে গিয়ে সোনার কারিগর হিসাবে কাজও করছিলেন৷

বৃহস্পতিবার সেখানেই রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয় বছর সতেরোর ভাস্করের৷ জানা যায়, নিজের ঘর থেকে উদ্ধার হয় ভাস্করের ঝুলন্ত দেহ৷ ময়নাতদন্ত করার পর ভাস্করের দেহ শনিবার গ্রামের বাড়ি পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুরের চাঁইপাটে পৌঁছলে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি হয় গোটা গ্রামে৷ গ্রামবাসীদের অভিযোগ, খুন করা হয়েছে ভাস্করকে৷ অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরা রাস্তায় দেহ রেখে পথ অবরোধও করেন৷

ঘণ্টাখানেক অবরোধের পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছলে গ্রামবাসীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক বচসা শুরু হয়৷ পরিস্থিতি ক্রমেই অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে৷ পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়া হয়৷ এরপর পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর করে উল্টে দেওয়া হয় রাস্তার উপর৷ এলাকা হয়ে ওঠে রণক্ষেত্র৷

এমনকী পুলিশের উপর হামলারও অভিযোগ ওঠে৷ এরপরই বিশাল পুলিশবাহিনী পাঠানো হয় এলাকায়। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শচীন মক্কড় জানান, এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে ১৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ৷ জিজ্ঞাসাবাদ চলছে৷ সন্ধ্যার পর এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলেও নতুন করে যাতে উত্তেজনা না ছড়ায় তার জন্য গ্রামজুড়ে মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনী৷

Print