পদ্মা পাড়ে সাব্বিরদের বিশ্বকাপ আড্ডা

June 14, 2018 at 1:19 pm

রাজশাহী নগরীর আলুপট্টি সংলগ্ন পদ্মা নদীর পাড়ে চেয়ারে বসে গোল করে স্থানীয় বন্ধুদের নিয়ে আড্ডা দেন জাতীয় ক্রিকেট দলের দুই খেলোয়াড় সাব্বির রহমান রুম্মান ও সানজামুল ইসলাম নয়ন। কাছে গিয়ে কৌশল বিনিময়ে জানা গেল আড্ডার মূল বিষয় ক্রিকেট নয়, ফুটবল বিশ্বকাপ।

বিশ্বকাপ ঘিরে বিশ্বের অন্য দেশের মতো বাংলাদেশেও চলছে উন্মাদনা। আর এখানে পিছিয়ে নেই ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া সাব্বির। তিনি বুধবার দুপুরে ঈদ করতে ঢাকা থেকে নাড়ীর টানে ফিরেই প্রিয় পদ্মা পাড়ে ছুটে আসেন। তার ডাকেই আসেন জাতীয় দলের আরেক সতীর্থ সানজামুল ইসলাম নয়ন, মোক্তার আলী, বিভাগীয় দলের ক্রিকেটার তনু, সৌরভ, রুবেলসহ স্থানীয় বন্ধুরা।

বিশ্বকাপের আমেজে বৃহস্পতিবার বিকালে শহীদ কামারুজ্জামান বিভাগীয় স্টেডিয়ামে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার জার্সি পরে দুই ভাগে ফুটবল ম্যাচ খেলার পরিকল্পনা চলছিল আড্ডায়। কারণ রাজশাহীর আরেক ছেলে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাসুদ পাইলট ব্রাজিলের সমর্থক। তিনিও ঈদ করতে আসবেন রাজশাহীতে। তাই তাকে নিয়ে অন্য ক্রিকেটার বন্ধুদের সঙ্গে বিশ্বকাপ উন্মদনায় মেতে উঠতে চান সাব্বির-সানজামুলরা।

বাংলাদেশ ফুটবল বিশ্বকাপে নেই। অথচ উন্মাদনার শেষ নেই ফুটবলপ্রেমীদের। বাড়ির ছাদে থেকে শুরু করে আনাচে-কানাচে ভিনদেশি পতাকা উড়ছে। এসব বিষয়ে সাব্বির বলেন, ‘আমাদের দেশ ক্রিকেট বিশ্বকাপে খেলে। তখন ভিন দেশি পতাকা উড়ে না। কারণ নিজের দেশ খেলছে। আর ফুটবলে বাংলাদেশ নেই। তাই বিশ্বকাপের মজাটা উপভোগ করার জন্য ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা, জার্মানিসহ প্রিয় দলকে সমর্থন দিচ্ছেন। তবে আমাদের দেশও একদিন ফুটবল বিশ্বকাপে খেলবে।’

বাস্তবতা ভালো জানা আছে এই ডানহাতি ব্যাটসম্যানের, ‘তবে ফুটবল বিশ্বকাপে খেলার মতো অবস্থান আমাদের এখনও তৈরি হয়নি। তাই বিশ্বকাপে খেলার জন্য আমাদের দেশে পেশাদার লিগসহ বিভিন্ন ফুটবলের জমজমাট আসর আয়োজন করতে হবে। সে সব আসরে ভালো মানের ফুটবল খেলোয়াড়কে বাছাই করতে হবে। আমার জানা মতে, আমাদের দেশে অনেক ভালো মানের ফুটবল খেলোয়াড় রয়েছে। এক সময় আমরাও ক্রিকেটের মতো ফুটবল বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারব।’

বিশ্বকাপ শিরোপা এবার ব্রাজিলের হাতে চান সাব্বির, ‘আমি তো ব্রাজিল সমর্থক। আমার বাড়িতে একটা প্লে স্টেশন ফোর আছে। ব্রাজিল নিয়ে খেলি এবং আর্জেন্টিনাকে হারাই। ব্রাজিল বিশ্বকাপে কী করবে জানি না। তবে তাদের জন্য শুভ কামনা থাকবে। যাতে করে তারা ভালো কিছু করতে পারে। বিশ্বকাপটা যেন নিয়ে যেতে পারে।’

আরেক জাতীয় ক্রিকেটার সানজামুলও ব্রাজিল ভক্ত, ‘২০০২ বিশ্বকাপ খেলা দেখতাম। তখন রোনালদো ও রোনালদিনহোর খেলা ভালো লাগতো। তখন থেকেই ব্রাজিলকে সমর্থন করতাম। আমাদের ক্রিকেটারদের মধ্যে ফরহাদ ভাই সহ অনেক ক্রিকেটার আছে, যারা আর্জেন্টিনার সমর্থক। তাদের সঙ্গে আমরা ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার খেলা ও খেলোয়াড় নিয়ে অনেক সময় তর্ক-বিতর্কে আড্ডা জমিয়ে তুলি।’

Print