রাজীবের ভাইদের ক্ষতিপূরণে আদেশ স্থগিত, তদন্তের নির্দেশ

May 22, 2018 at 1:20 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

রাজীবের দুই ভাইকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশন (বিআরটিসি) ও স্বজন পরিবহনের মালিককে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ।

একইসঙ্গে ওই ঘটনায় দুই বাস কর্তৃপক্ষের মধ্যে কারা দায়ী তা নিরুপণ করতে একটি ‘স্বাধীন কমিটি’ গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। ওই কমিটিকে ৩০ জুনের মধ্যে হাইকোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করতে হবে। পরে প্রতিবেদনের আলোকে হাইকোর্ট রাজীবের দুইভাইকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আদেশ দেবেন।

মঙ্গলবার (২২ মে) প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে বাস মালিকদেরে পক্ষে আইনজীবী ছিলেন আবদুল মতিন খসরু ও এবিএম বায়েজীদ। সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার মুনীরুজ্জামান।  রাজীবের পরিবারের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

আদেশের পর ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল সাংবাদিকদের বলেন, ‘কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্ট যে আদেশ দিয়েছিলেন সেটি স্থগিত করে আপিল বিভাগ সংশ্লিষ্ট কোর্টকে নির্দেশ দিয়েছেন একটি স্বাধীন কমিটি গঠন করতে। যে কমিটি দুর্ঘটনার দায় নিরূপণ করবে। কমিটিকে ৩০ জুনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলেছেন আদালত। সে প্রতিবেদনের আলোকে সংশ্লিষ্ট কোর্ট (হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চ) রাজীবের ছোট দুইভাইয়ের জন্য পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ নির্ধারণ করবে।’

বিআরটিসির আইনজীবী ব্যারিস্টার মুনীরুজ্জামান বলেন, ‘দায়ী হলে বিআরটিসি উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দিতে প্রস্তুত। আমরাও এ ঘটনায় ক্ষতিপূরণের পক্ষে। কিন্তু দুর্ঘটনাটির দায়-দায়ী নিরূপণ না করে তো এটা হতে পারে না। আপিল বিভাগ হাইকোর্টের আদেশটি স্থগিত করে যে আদেশটি দিয়েছে, নিঃসন্দেহে এটি বাস্তবসম্মত এবং যথাযথ।’

গত ৮ মে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের হাইকোর্ট বেঞ্চ রাজীবের দুইভাইকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে বিআরটিসি ও স্বজন পরিবহনের মালিককে নির্দেশ দেন।

এর মধ্যে ২৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ একমাসের মধ্যে দিতে বলা হয় দুই বাস কর্তৃপক্ষকে।

কিন্তু বিআরটিসি ২৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় ১০ মে আপিল আবেদন করে। ১৩ মে আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে আবেদনটি ১৭ মে শুনানির জন্য পাঠান।

Print