ময়নাতদন্তের জন্য ৪৯ লাশ নেপালের হাসপাতালে

March 13, 2018 at 9:34 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

নেপালের কাঠমান্ডুতে বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় ৪৯টি লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার দেশটির গণমাধ্যম কাঠমান্ডু পোস্ট এ তথ্য জানিয়েছে।

গতকাল সোমবার কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের একটি বিমান। বিমানে যাত্রী ছিলেন ৬৭ জন। চারজন ছিলেন ক্রু।

নেপালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামস গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় জানান, এখন পর্যন্ত ৪৯ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

কাঠমান্ডু পোস্ট জানায়, আজ লাশগুলোর ময়নাতদন্ত করার জন্য কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন ইউনিভার্সিটি টিচিং হসপিটালে (টিইউটিএইচ) নেওয়া হয়েছে। দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, বিভিন্ন হাসপাতাল থেকে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টিইউটিএইচে নেওয়া হয়েছে।

কাঠমান্ডুর বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা এ ব্যাপারে সহযোগিতা করছেন। নিহতদের মধ্যে যারা বাংলাদেশি তাঁদের স্বজনরা হাসপাতালে পৌঁছেছেন।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী এ কে এম শাহজাহান কামাল নেতৃত্বাধীন একটি দল এরই মধ্যে কাঠমান্ডু পৌঁছেছেন।

গতকাল দুপুর ১২টা ৫১ মিনিটে ৭১ জন যাত্রী নিয়ে নেপালের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়ে ইউএস বাংলার ড্যাশ এইট কিউ ফোর হানড্রেড মডেলের এই বিমানটি। দুপুর ২টা ২০ মিনিটে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। সঙ্গে সঙ্গে রানওয়ে থেকে ছিটকে বিমানটি পাশের খালি মাঠে গিয়ে পড়ে। দুই ইঞ্জিনের বিমানটি ভেঙে কয়েক টুকরো টুকরো হয়ে পড়ে। বিক্ষিপ্ত অংশগুলোতে লাগা আগুনের কালো ধোঁয়ায় ছেয়ে যায় গোটা বিমানবন্দর।

Print