বিমান বিদ্ধস্ত: রাজশাহীর চার জনের লাশের অপেক্ষায় স্বজনরা

March 13, 2018 at 1:40 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় রাজশাহীর মোট ৫ যাত্রী নিহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এখনো একজন জীবিত আছেন। তাদের মধ্যে নজরুল ইসলাম এবং তার স্ত্রী আক্তার বেগমের বাড়ি নগরীর উপশহর এলাকায়। আর নগরীর শিরোইল এলাকার হাসান ইমাম ও তার স্ত্রী হুরুন নাহার বিলকিস বানু। এই চার জনের কেউই বেঁচে নেই বলে পরিবারের সদস্যরা নিশ্চিত হয়েছেন।

তাদের লাশ গ্রহণের জন্য এরই মধ্যে মঙ্গলবার সকাল নেপালে গেছেন পরিবারের সদস্যরা। সেখান থেকে লাশ আশার অপেক্ষায় আছেন পরিবারের অন্য সদস্যরা। এরপর রাজশাহীতেই তাদের চারজনর দাফন সম্পন্ন হবে বলেও জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। ফলে লাশের অপেক্ষায় এখন শোক সন্তপ্ত পরিবার দুটির দিন কাটছে।

জানা গেছে, নজরুল ইসলাম বাংলাদেশ ডেভলপমেন্ট ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও আক্তার বেগম রাজশাহী সরকারি মহিলা কলেজের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিক। দু’জনেই সম্প্রতি আবসরে গেছেন।

সোমবার নেপালের কাঠমাণ্ডুতে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলার উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়। সেই বিমানের যাত্রী ছিলেন তারা দুই জনও।

তাদের মেয়ে কাকন জানান, নেপালের কাঠমাণ্ডুতে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ইউএস বাংলার যে বিমানটি দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন তাতে তার বাবা-মা ছিলেন। তবে তাদের শেষ অবস্থা কি তা তারা জানতে পারিনি। তবে তারা চেষ্টা করছেন বাবা-মার অবস্থা জানার জন্য।

এদিকে, নগরীর শিরোইল এলাকার হাসান ইমাম ও তার স্ত্রী হুরুন নাহার বিলকিস বানু দুর্ঘটনা কবলিত বিমানে ছিলেন বলে জানান গেছে। এদের মধ্যে হাসান ইমাম সরকারি যুগ্নসচিব ও বিলকিস আরা নাটোরের লালপুর কলেজের অসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ছিলেন।

অন্যদিকে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তার ফেসবুক পেজে হতাহতদের যে তালিকা দিয়েছেন-তাতে রাজশাহীর এই দুই দম্পতির নামও রয়েছে। তারা নিহত হয়েছেন বলে উল্লেখ রয়েছে।

অপরদিকে রাজশাহী বরেন্দ্র করেজের অধ্যক্ষ আলমগীর মালেক জানান, তার বোন হুরুন নাহার বিলকিস বানু এবং দুলাভাই হাসান ইমাম- দু’জনেই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতির ছাত্র ছিলেন। বোন অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষক আর দুলাভাই ছিলেন অবসরপ্রাপ্ত যুগ্মসচিব ছিলেন। তারা দুজনেই আর বেঁচে নেন বলে তারা মনে করছেন। এ কারণে এখন লাশের অপেক্ষায় সময় কাটছে তাদের। লাশ রাজশাহীতে এলেই এখানে তাদের দাফন সম্পন্ন করা হবে।

তাদের দুই ছেলে কানাডা থেকে এরই মধ্য রওনা দিয়েছেন। আজকেই তারা দেশে ফিরবেন বলেও ধারণা করা হচ্ছে।

অপরদিকে নেপাল ইউএস বাংলার বিমান বিদ্ধস্ত হওয়ার ঘটনায় রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) দুই শিক্ষক দম্পতি ছিলেন। তারা হলেন, রুয়েটের কম্পিউটার সাইন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে সহকারী অধ্যাপক ইমরানা কবির হাসি এবং তার স্বামী রাকিবুল হাসান। তবে রাকিবুল হাসান মারা গেছেন। আর চিকিৎসাধীন আছেন স্ত্রী হাসি। 

স/আর

Print