চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিএমডিএ’র টেন্ডারের নামে গাছ হরিলুট

January 12, 2018 at 7:36 pm
নিজস্ব প্রতিবেদক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ :
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল-রহনপুর সড়কের বিএমডিএর রোপিত বিভিন্ন জাতের গাছের ডালপালাসহ মাথা কাটার মহোৎসব চলছে। এসব কাটা ডালপালা বিএমডিএর পক্ষ থেকে স্পট টেন্ডারের নামে চলছে হরিলুট, দেখার কেউ নেই।
নাচোল-রহনপুর সড়কের কাজলা রেল লাইন পার হলেই রাস্তার ধারের কড়ই, শিশু ও আম গাছের মাথা কাটার দৃশ্য দেখা যায়। এসব গাছের মাথা কাটার কাজ করছে পিডিবির বিদ্যুৎ পোল স্থাপনের জন্য সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের লোকজন। উপজেলার কাজলা রেল লাইন থেকে চন্দনা পর্যন্ত প্রায় ৫/৬ কিলোমিটার রাস্তার এক ধারের কাষ্ঠল ও ফলজ (আম) গাছের ডালপালাসহ মাথা কাটার কাজ চলছে প্রায় মাস খানেক ধরে।
স্থানীয়রা জানান, এসব কাটা ডালপালা পিডিবির লোকজন ইচ্ছামতো বিক্রী করছে। এ বিষয়ে নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ নাজমুল হক ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের বলেন, তাঁদের করনীয় কিছুই নাই। বিষয়টি জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটিতে উত্থাপন করলে রাস্তার ধারের গাছ বিএমডিএর এবং এর দায়-দায়িত্ব বিএমডিএর বলে জানানো হয়।
বিএমডিএ নাচোল জোনের সহকারী প্রকৌশলী মুঞ্জুরুল ইসলাম জানান, কাটা ডালপালাগুলো স্পট টেন্ডারের মাধ্যমে বিক্রি করা হয়।
কিন্তু সরেজমিনে দেখা গেছে, স্পট টেন্ডারের নামে চলছে হরিলুট। স্পট টেন্ডারের ক্ষেত্রে প্রাক মূল্যায়ণ কমিটি ও সংশ্লিষ্ট এলাকার জনপ্রতিনিধি ও লোকজনের অংশগ্রহণ ছাড়াই মনগড়াভাবে স্পট টেন্ডার দেয়া হচ্ছে।
এলাকাবাসী জানান, কোন নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই নামমাত্র মূল্যে স্পট টেন্ডার দেয়া হচ্ছে। এতেকরে সরকারের (বিএমডিএ)’র লাখ লাখ টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে।
উল্লেখ্য, নাচোল-আমনুরা সড়কেও  ২/৩ মাস পূর্বে এভাবেই রাস্তার ধারের শিশু, কড়ই ও আম গাছের মাথা কেটে ডালপালা অবাধে বিক্রি করেছে পিডিবির ঠিকাদারের লোকজন।
পিডিবির রহনপুর জোনের আরই জানান, প্রধানমন্ত্রীর শতভাগ বিদ্যুৎ সংযোগের কনসেপ্ট মাথায় রেখে কাজ চলছে। রাস্তার ধারের গাছের কাটা ডালপালা স্পট টেন্ডার দিয়ে থাকে বিএমডিএ, পিডিবি স্পট টেন্ডারের সাথে জড়িত নয়। অভিজ্ঞমহল মনে করছেন বিষয়টি ক্ষতিয়ে দেখা দরকার।
স/অ
Print