এলাকার উন্নয়ন চাইলে নৌকার বিকল্প নেই-মোহাম্মদ আলী

December 11, 2017 at 10:08 pm

বাঘা প্রতিনিধি:
বর্তমান সরকারের শাসনামলে উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে রাজশাহীর বাঘা পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় মেয়র প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী। প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে তিনি বলেন, চারঘাট-বাঘার সাংসদ ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ শাহ্রিয়ার আলম দুই দুইবার নির্বাচিত হয়ে অনেক উন্নয়ন করেছেন।

দেশ ও এলাকার উন্নয়ন চাইলে নৌকার বিকল্প নেই। অতীতের ভুল ত্রুটিকে বড় করে না দেখে, পৌরসভার উন্নয়ন ধরে রাখতে আক্কাছ আলীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ দলীয় নেতা-কর্মীদের বলেন, সকল দ্বিধা দ্বন্দ্ব ভুলে ঐক্যবদ্ধ থেকে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকার প্রার্থীকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে হবে।

তিনি বলেন, দলের ভিতরে থেকে একটি অপশক্তি আওয়ামী লীগের ক্ষতি করার অপচেষ্টায় দলে বিভেদ সৃষ্টি করে নেতাকর্মীদের বিভ্রান্ত করছে। সকল অপশক্তির বিষয়ে নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকার আহবান জানিয়ে আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন,আওয়ামী লীগ তাদের সে সুযোগ দেবে না।

২৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় বাঘা পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকায় দলীয় প্রার্থীর পথসভায় এসব কথা বলেন তারা।

সোমবার সন্ধ্যার পর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি আজিজুল আলমের সভাপতিত্বে এই পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শিক্ষক আশারাফুল ইসলাম বাবুলে সঞ্চলানায় আ’লীগের প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র আক্কাছ আলী তাঁর সময়কালে পৌর সভাকে প্রথম শ্রেনীতে উন্নিত করাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কাজের ফিরিস্তি তুলে ধরে অতীতের ভুল ত্রুটির ক্ষমা চেয়ে আরেকবার নির্বাচিত করার জন্য ভোট প্রার্থনা করেন তিনি।

এই সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আ’লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান চঞ্চল, সাংগঠনিক সম্পাদক আলফুর রহমান, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের সভাপতি জাহিদ রহমান, অধ্যক্ষ নছিম উদ্দিন, প্রভাষক আমিরুল ইসলাম, বাঘা উপজেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহিদ কবির সাদিক, সিরাজুল ইসলাম মন্টু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রোকনুজ্জামান রিন্টু, সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দীন, জেলা পরিষদের সদস্য জয়জয়ন্তি মালতি সরকার, জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদিকা বিপাশা খাতুন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফাতেমা মাসুদ লতা প্রমুখ।
স/শ

Print