সিনেমা দেখে ছক, অপহরণের পর শিশুকন্যাকে জলে ডুবিয়ে খুন

December 7, 2017 at 7:37 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

কমবয়সীদের মধ্যে ক্রমশ বাড়ছে অপরাধ প্রবণতা৷ এবার পাঁচ বছরের এক শিশুকন্যাকে অপহরণ করে তাকে জলে ডুবিয়ে মারার অভিযোগে একাদশ শ্রেণির ছাত্রকে গ্রেফতার করল হরিয়ানা পুলিশ৷তাকে জেরার পর উঠে এসেছে আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য৷ পুলিশ জানিয়েছে, সহজে টাকা রোজগারের তাগিদে অপহরণের ছক কষে সে৷ সিনেমা দেখেই সেই অপহরণের ফন্দি মাথায় আসে তার৷

এদিন সকালে ওই কিশোরকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়৷ সেই সময় ল্যাপটপ নিয়ে ব্যস্ত ছিল সে৷ পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেফতারের পরও ভাবলেশ ছিল সে৷ নিজের কৃতকর্মের কোন অনুশোচনা ছিল না তার৷ জেরায় সে জানিয়েছে, সিনেমার অনুকরণে টাকা রোজগারের জন্য পাশের বাড়ির পাঁচ বছরের মেয়েকে অপহরণ করার পরিকল্পনা করে৷

পুলিশ জানিয়েছে,গতকাল বিকেলে পাঁচ বছরের মেয়েটি তার বাড়ির বাগানের সামনে খেলা করছিল৷ সেই সময় তাকে প্রলোভন দেখিয়ে বাড়িতে ডেকে আনে ওই কিশোর৷ এদিকে শিশুটির বাড়ির লোক অনেক খোঁজাখুজির পরও তাকে না পেয়ে চিন্তিত হয়ে পড়ে৷ কয়েক ঘন্টা কেটে যাওয়ার পরও মেয়েকে খুঁজে না পাওয়ায় পুলিশের কাছে ছুটে যান তারা৷

এরই মধ্যে মেয়েটির বাড়িতে অপহরণকারী কিশোর ফোন করে কুড়ি লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে৷ সেই ফোনের সূত্র ধরে অপরাধীর কাছে পৌঁছে যায় পুলিশ৷ ছেলেটিকে গ্রেফতার করলেও মেয়েটিকে উদ্ধার করা যায়নি৷ ছেলেটিকে জিঞ্জাসাবাদের পর জানা যায়, মেয়েটিকে জলের টাবে ডুবিয়ে খুন করে সে৷ মেয়েটিকে খুন করার পর তার মৃতদেহ ওয়াটার কুলারের পিছনে লুকিয়ে রেখেছিল৷ পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়৷

এদিকে কমবয়সীদের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা বাড়ার ঘটনায় উদ্বিগ্ন পুলিশও৷ এর আগে গুরুগ্রামের রায়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির এক ছাত্রকে খুন করার অভিযোগে একাদশ এক ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে সিবিআই৷

Print