পুঠিয়ায় কলেজ ছাত্রীকে গণধর্ষন: আদালতে সাবেক স্বামীর স্বীকারক্তি

October 13, 2017 at 7:05 pm

মইদুল ইসলাম মধু, পুঠিয়াঃ

রাজশাহীর পুঠিয়ায় কলেজ ছাত্রীকে তুলে নিয়ে গিয়ে অস্ত্রের মুখে গণধর্ষনের ঘটনায় গ্রেফতার ওই কলেজছাত্রীর সাবেক স্বামী শাহজাহান আলী আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

আজ শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) বিকেল ৫ টায় তাকে আদালতে তোলা হলে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।

তিনি জবানবন্দিতে ধর্ষনের কথা স্বীকার করেছেন বলে সিল্কসি টিনিজকে নিশ্চিত করেছেন পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সায়েদুর রহমান ভূইয়া পিপিএম।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার সকালে পুঠিয়া থানায় ভিকটিম নিজে বাদী হয়ে তার সাবেক স্বামী শাহজাহান আলী (২৭) সহ তার দুই বন্ধু মারুফ ও শামীমকে আসামী করে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

এরা হলো পুঠিয়ার নওয়াপাড়া এলাকার হাসেম আলীর ছেলে শাহজাহান আলী (২৭), আব্দুল জলিলের ছেলে শামীম (২৩) এবং আছের আলীর ছেলে ফারুক হোসেন (২৫)। এদের মধ্যে শাহজাহান আলী মেয়েটির সাবেক স্বামী।

বেশকিছুদিন আগে মেয়েটির সঙ্গে তার বিয়ে হয়েছিল। এরপর সম্প্রতি তাদের বিচ্ছেদ ঘটে। তখন থেকেই মেয়েটি তার বাবার বাড়িতে থাকতো।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) ও পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত রাকিবুল হাসান জানান, গত বৃহস্পতিবার মামলা হওয়ার পর সন্ধায় উপজেলার নওয়াপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামী শাহজাহান আলীকে (২৭) গ্রেফতার করা হয়। পরে আজ শুক্রবার বিকেল ৫ টায় তাকে রাজশাহীর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হলে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়। এসময় সে ধর্ষনের কথা স্বীকার করেছে।

তিনি আরো জানান, জবানবন্দি শেষে আদালত তাকে জেল-হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। এঘটনায় আরো দুই আসামী ফারুক ও শামীম পলাতক রয়েছে তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ সেপ্টেম্বর রাতে বিড়ালদহ কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্রী বাড়ির পার্শে নানির বাড়ি যায় সেখান থেকে রাত ৯ টার দিকে বাসায় ফেরার পথে তার সাবেক স্বামী শাহজাহান আলী ও তার দুই বন্ধু মিলে তাকে অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে গিয়ে পার্শের একটি পেয়ারা বাগানে পালাক্রমে ধর্ষন করে। বিষয়টি কাউকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে রাত ১১ টার দিকে ছেড়ে দেয়া হয়। প্রান ভয়ে ঘটনাটি কাওকে জানায়নি মেয়েটি। পরে ঘটনার ১৪ দিন পর থানায় এসে মামলা দায়ের করে। সে বর্তমানে রামেক হাসপাতালের ওসিসিতে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স/অ

Print