পশ্চিমবঙ্গের এই অতি গভীর নিম্নচাপ কি ‘মহাপ্রলয়’-এর পূর্বাভাস!

October 9, 2017 at 8:17 pm

সিল্কসিটিনউজ ডেস্ক:

১৫ অক্টোবরই নাকি শুরু হতে চলেছে শেষের সেই দিনের ভয়ঙ্কর প্রস্তুতি? এই মর্মে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ভাইরাল সব খবর। বেশ কিছু আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, অসংখ্য সূত্র থেকে ১৫ অক্টোবর মহাপ্রলয়ের প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা উঠে এসেছে।

কিন্তু কী রয়েছে এই গুজবের পিছনে? এর আগে বহু বার ‘মহাপ্রলয়’ নিয়ে গুজব রটেছে। সেই সব নিয়ে রটনা অনেক সময়ে আতঙ্কের সৃষ্টিও করেছে। এই মুহূর্তে ১৫.১০.২০১৭ নিয়েই তোলপাড় নেট দুনিয়া।

এই রটনার কেন্দ্রে রয়েছে মহাপ্রলয় তত্ত্ববিদ ডেভ মিড-এর বক্তব্য। মিড বেশ কিছুদিন ধরেই নিবিরু নামের গ্রহাণুর পৃথিবীপৃষ্ঠে আছড়ে পড়ার খবরটি দিয়ে মহাপ্রলয়ের কথা বলছিলেন। নিবিরু ২০১৬-এর ডিসেম্বরেই দৃশ্যমান হয়েছে। কিন্তু তার বেশি কিছু ঘটেনি। এখন, মহাপ্রলয়-তাত্ত্বিকদের মধ্যে প্রতিযোগিতা চলেছে নিবিরুর নিবির সান্নিধ্যে পৃথিবীর ধ্বংস হওয়ার দিনটি নিয়ে।

এক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নিড বলেছেন, মেক্সিকোয় ভূমিকম্প, টেক্সাসে বন্যা এবং ক্যারিবিয়ান ও ফ্লোরিডায় হারিকেন এই প্রলয়েরই পূর্বাভাস। তাঁর মতে এর পরে আসবে মানব-নির্মিত কারণগুলি। মিড বলেছেন এর পরে রাশিয়া, চিন, ইরান ও উত্তর কোরিয়া জড়িয়ে পড়বে ভয়াবহ নিউক্লিয়ার যুদ্ধে। বাইবেল থেকে তিনি উদ্ধৃতি দিয়ে দেখিয়েছেন, সেখানে গ্রহ-তারা-নক্ষত্রে এই প্রলয়ের চিহ্ন ফুটে ওঠার কথা রয়েছে। আর সেটাই নাকি পরিষ্কার ভাবে দেখা গিয়েছিল ২১ অগস্ট আমেরিকায় সূর্যগ্রহণের সময়ে।

নাসা কিন্তু এই বক্তব্যকে একেবারেই মনগড়া বলে ঘোষণা করেছে।

অতি গভীর নিম্নচাপে হেদিয়ে পড়া কলকাতায় কিন্তু গল্প অন্য। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই ১৫ অক্টোবরের কাহিনিকে জুড়ে দিচ্ছেন এই ঝড়-বৃষ্টির সঙ্গে। মিড কলকাতাকে চেনেন না। চিনলে নির্ঘাত খুশি হতেন।  এবেলা

Print