ছয় মাস পরে রাবি ছাত্রলীগের পুর্ণাঙ্গ কমিটি, ঠাঁই হলো বিতর্কিতদেরও

June 19, 2017 at 6:53 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক ও রাবি প্রতিনিধি:
ছয় মাস পরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট পুর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ঠাঁই পেয়েছেন অনেক বিতর্কিত নেতারাও। যাদের কেউ কেউ ছাত্রদলও করতেন, কেউ কেউ মামলার আসামিও রয়েছেন।

রোববার সন্ধ্যায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ এ অনুমোদন দেয়। তবে বিষয়টি জানাজানি হয় সোমবার। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু।

সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জানান, ১৫১ সদ্যের কমিটিতে সহ-সভাপতি পদে ৪২ জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে ১০ জন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ১০ জন, প্রচার সম্পাদক, দপ্তর সম্পাদকসহ বিভিন্ন সম্পাদক পদে ৩২ জন ও উপ-সম্পাদক পদে ৩২ জন, সহ-সম্পাদক পদে ১৩ জন এবং সদস্য হিসেবে ১২ জনকে পদ দেয়া হয়েছে।

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু তার ফেসবুক পেজে অনুমোদিত পুর্ণাঙ্গ কমিটির যে তালিকা প্রকাশ করেছেন, সেখানে ১১০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির তালিকা প্রদান করা হয়েছে।

এতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদসহ সহ-সভাপতি পদে ৪২ জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে ১০ জন, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ১০ জন, বিভিন্ন সম্পাদক ও উপ সম্পাদক পদে ১৩ জন, সহ-সম্পাদক পদে ২৩ জন এবং সদস্য হিসেবে ১০ জনের নাম উল্লেখ রয়েছে। এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, ‘ফেসবুকে কয়েকটি পাতা আপলোড করা হয়নি। খুব শীগগিরই তা দেয়া হবে। ছাত্রলীগকে শক্তিশালী করতেই পুণার্ঙ্গ কমিটি দেয়া হয়েছে।’

পুর্ণাঙ্গ কমিটিতে পদপ্রাপ্তদের অনেকের বিরুদ্ধেই রয়েছে অভিযোগ। সহ-সভাপতি পদে মাহফুজুর রহমান এহসানের বিরুদ্ধে ছাত্রদল করার অভিযোগ ও মামলা রয়েছে। আবু খায়ের মোস্তফা রিনেট ছাত্রদল থেকে আসা। রবিউল আউয়াল মিল্টন বহিস্কৃত এবং সাংবাদিক মারধরের অভিযোগ রয়েছে। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে সাইফ ইবনে করিম রুপমের ছাত্রত্ব শেষ হয়ে গেছে। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মুশফিক তাহমিদ তন্ময়ও বহিস্কৃত।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৮ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ২৫ তম সম্মেলনের পর ১১ ডিসেম্বর ১৩ সদস্যের প্রাথমিক কমিটি ঘোষণা দেয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। শীগগিরই পুর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার নির্দেশনা থাকলেও ছয় মাস পর পুর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন হলো।

স/আর

Print