সাপাহারে কোটি টাকার স্বর্নালংকার ও কাপড় চুরি

June 15, 2017 at 4:36 pm

সাপাহার প্রতিনিধি:
নওগাঁর সাপাহার বাজারের মুক্তা জুয়েলার্স ও নাজমা গার্মেন্টসে নগদ অর্থসহ প্রায় ১কোটি টাকার কাপড় ও স্বর্নালংকার চুরি সংঘটিত হয়েছে। চোরেরা দুটি দোকান থেকে আনুমানিক ১২০ভরি সোনা, নগদ টাকা, কাপড় সহ প্রায় ৭০লক্ষ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দিবাগত রাতে উপজেলা সদর মেইন বাজারের ওয়ালটন মোড়ে গিয়াস মার্কেটে।

 

জানা গেছে, প্রতিদিনের ন্যায় দোকান মালিকগন সন্ধ্যায় তাদের দোকান বন্ধ করে নিজ নিজ বাসায় চলে যায়। বাজারে প্রায় ২০জন নাইটগার্ড ও পুলিশিং টহল থাকার পরেও রহস্য জনক ভাবে গভীর রাতে চোরেরা প্রথম ওই মার্কেটের আলম ভ্যারাইটি ষ্টোরের সাটারিং ভেঙ্গে দোকানে ঢুকে মুক্তা জুয়েলার্সের দেওয়াল ফুটো করে জুয়েলার্সের দোকানে প্রবেশ করে। সেখান থেকে তারা ড্রয়ার ও দুটি সিন্দুক ভেঙ্গে প্রায় ২৫হাজার টাকা ও শো-কেস হতে আনুমানিক ১২০ভরি সোনার গয়নাসহ মোট ৬০লাখ ২৫হাজার টাকা এবং নাজমা গার্মেন্টস এর দেওয়াল ফুটো করে ওই দোকানে প্রবেশ করে নগদ ৯লাখ ২৫হাজার টাকা, কাপড় চোপড় সহ সর্বমোট সাড়ে ৯লাখ টাকার সম্পদসহ সর্বমোট ৬৯লাখ ৭৫হাজার টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায় বলে নাজমা গার্মেন্টস এর মালিক নঈমদ্দীন ও মুক্তা জুয়েলার্সের মালিক আবুল কালাম আজাদ জানান।

 

চুরি হওয়া দোকান পুলিশের সাপাহার সার্কেল মো. সামিউল আলম, থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শামসুল আলম পরিদর্শন করেন।

 

বিকেলে প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এ বিষয়ে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্ততি চলছিল।

 

তবে শক্তিশালী নাইটগার্ড ও প্রতি রাতে পুলিশের টহল দল সক্রিয় থাকার পরেও মেইন রোডে এমন দুঃসাহসিক চুরির বিষয়ে স্থানীয় জনসাধারণের সন্দেহের তির এখন বাজারের নাইটগার্ড ও টহল রত পুলিশের দিকে।
স/শ

Print