বাস্তবে যেমন দেখতে বাংলা টেলিভিশনের দ্রৌপদীকে

June 13, 2017 at 7:51 pm

সিল্কসিটিনিউজ ডেস্ক:

‘ভক্তের ভগবান শ্রীকৃষ্ণ’ ধারাবাহিকে যেদিন থেকে শুরু হয়েছে মহাভারত পর্ব, সেদিন থেকেই দর্শকদের কৌতূহল ছিল কে হলেন দ্রৌপদী। বাস্তবে কেমন দেখতে এই অভিনেত্রীকে, দেখুন ছবি-

মহাভারত’-এ দৌপদীই সম্ভবত সবচেয়ে আলোচিত চরিত্র। শুধুমাত্র তাঁর পাঁচ স্বামীর জন্য নয়, দ্রৌপদীকে বলা যেতে পারে অনুঘটক। কৌরব ও পাণ্ডবদের মধ্যে শত্রুতা যা ছিল তা তো ছিলই, কিন্তু দ্রৌপদী যদি দুর্যোধনের গলায় মালা দিতে অস্বীকার না করতেন বা কর্ণকে সুতপুত্র বলে অপমান না করতেন, তা হলে হয়তো গল্পটা একটু অন্য রকম হতো।

তবে ধর্মযুদ্ধ অনিবার্য ছিল। ভগবান বিষ্ণু তো ধর্মপ্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যেই শ্রীকৃষ্ণ রূপে ধরাধামে অবতীর্ণ হয়েছিলেন। তাই অধর্মের উপর ধর্মের জয়কে প্রতিষ্ঠা করতে একটা ‘শেষ’ যুদ্ধের প্রয়োজন ছিলই। সেই যুদ্ধের পরিপ্রেক্ষিত খুব সুচতুর ভাবে, একটু একটু করে বুনে তোলা হয় দীর্ঘ সময় ধরে। আর সেই বুননের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন সুন্দরী, রন্ধনপটীয়সী, বিদূষী, বুদ্ধিমতী ও ব্যক্তিত্বসম্পন্না ‘পাঞ্চালী’।

ইন্দ্রপ্রস্থ নির্মাণের পরে, অতিথি দুর্যোধন জলকে স্ফটিক ভেবে যখন নাকানিচোবানি খাচ্ছিলেন, তখন দ্রৌপদী যদি তাঁকে ‘অন্ধের ছেলে অন্ধ’ বলে দুয়ো না দিতেন তবে হয়তো প্রতিশোধ নিতে বস্ত্রহরণের মতো জঘন্য পাপের ভাগী হতেন না কৌরবরা। সব মিলিয়ে দ্রৌপদীকে ছাড়া মহাভারত প্রাণহীন আর তাই এই চরিত্রের কাস্টিং অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

‘ভক্তের ভগবান শ্রীকৃষ্ণ’ ধারাবাহিকে যেদিন থেকে শুরু হয়েছে মহাভারত পর্ব, সেদিন থেকেই দর্শকদের কৌতূহল ছিল কে হবেন দ্রৌপদী। ‘জি বাংলা’-র ‘ফুলমণি’-ই যে ‘দ্রৌপদী’ হয়ে উঠবেন, সেটা দর্শক হয়তো ভাবেননি। অভিনেত্রী দেবযানী মোদক বাস্তবেও অত্যন্ত সুন্দরী। চরিত্রের প্রয়োজনে এই ভারি সাজ সরিয়ে নিলেও তিনি সুন্দর। বরং মেকআপ ছাড়া তাঁর লুকটি অনেক বেশি স্নিগ্ধ! এই ছবিগুলিই তার প্রমাণ।

Print